সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১২:২৫ পূর্বাহ্ন

নোটিশ :
সিলেট বিভাগসহ দেশের প্রতিটি জেলা ও উপজেলা সদরে প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে। আগ্রহীরা আমাদের পত্রিকার ইমেইল ঠিকানায় পূর্নাঙ্গ জীবন বৃত্তান্ত প্রেরণের আহবান জানানো যাচ্ছে। এছাড়া প্রবাসের বিভিন্ন দেশে আমরা প্রতিনিধি নিয়োগ দিচ্ছি।
শিরোনাম :
পবিত্র শবে বরাত আজ সেতুর অভাবে সংকটে স্থানীয় পণ্য সরবরাহ লাঠিটিলায় অভিনব কায়দায় গাছ চুরি ইয়ুথ ডেলিগেশনে ভারতে যাচ্ছেন সিলেট বিভাগের ১০ জন হাকালুকির মৎস্যসম্পদ রক্ষায় নানান উদ্যোগ বিশ্বম্ভরপুরে হাঁস তাড়িয়ে দেয়ায় যুবক খুন গোয়াইনঘাটে আবারও পরিত্যক্ত মর্টার শেল উদ্ধার কিশোরীকে নিয়ে পলায়ন, ১৮ দিন পর প্রেমিক আটক শিক্ষার গুণগত মান উন্নয়নে কাজ করছেন প্রধানমন্ত্রী: প্রতিমন্ত্রী শফিক চৌধুরী  সূর্যসন্তানদের ত্যাগের বিনিময়ে আমরা স্বাধীন দেশ পেয়েছি: প্রতিমন্ত্রী শফিকুর রহমান চৌধুরী বিচারহীনতায় মানুষকে যেন কষ্ট পেতে না হয়: প্রধানমন্ত্রী নগরীর যেসব এলাকায় দুইদিন বিদ্যুৎ থাকবে না দক্ষিণ সুরমায় জুয়া খেলার সামগ্রীসহ ২২ জুয়াড়ি গ্রেপ্তার হবিগঞ্জে দুই পাখি শিকারিকে জরিমানা, পুলিশ হেফাজতে এয়ারগান সিলেটে মৌসুমের সর্বোচ্চ বৃষ্টি বিদেশে গিয়ে কর্মীদের কাজ না পাওয়ার তদন্ত চলছে: প্রতিমন্ত্রী শফিকুর রহমান চৌধুরী বিশাল সামুদ্রিক সম্পদ ব্যবহার করতে হবে: প্রধানমন্ত্রী কুলাউড়ায় ট্রাক উল্টে চালকের মৃত্যু দক্ষিণ সুরমা সরকারি কলেজে মাতৃভাষা দিবস উদযাপন ভাষা শহীদদের প্রতি রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা সকল ভাষা ও সংস্কৃতি রক্ষার অনুপ্রেরণা অমর একুশে আজ পুলিশ ক্যাম্পে বিক্ষুব্ধ জনতার ভাঙচুর, ২৭ রাউন্ড ফাঁকা গুলি হবিগঞ্জে দুই মোটরসাইকেলের সংঘর্ষে আহত ৬ গোয়াইনঘাটে উদ্ধারকৃত মর্টার শেল ধ্বংস দোয়ারাবাজারে ভারতীয় মদসহ যুবক আটক হবিগঞ্জে গৃহবধূ ও তরুণের আত্মহত্যা গোয়াইনঘাটে তিন ভারতীয় নাগরিকসহ গ্রেপ্তার ৮ বসন্তে টকটকে লাল ফুলে সেজেছে শিমুল বাগান বিলুপ্তির পথে গ্রামবাংলার ঐতিহ্য ছনের ঘর নগরীর ফুটপাত দখলমুক্ত ও যানজট নিরসনে ব্যবসায়ীদের আল্টিমেটাম
ধ্বংস হচ্ছে মাছ, শঙ্কিত কৃষকেরা
বালাগঞ্জে অবৈধভাবে বিল সেচ

ধ্বংস হচ্ছে মাছ, শঙ্কিত কৃষকেরা
বালাগঞ্জে অবৈধভাবে বিল সেচ

 

বালাগঞ্জ প্রতিনিধি :: সিলেটের বালাগঞ্জ উপজেলা সদরের ঘোরাপুর হাওরের পাশে সরকারের লিজকৃত ঝড়ঝড়ি জলমহাল সেচ করে মাছের বংশ নির্বংশ করার খবর পাওয়া গেছে। বেশ কিছুদিন থেকে প্রকাশ্যে এলাকার কিছু চিহ্নিত সংঘবদ্ধ কুচক্রী মহল অবৈধ এই কর্মকাণ্ড চালিয়ে যাচ্ছে। পানি শুকিয়ে মাছ ধরা এবং জলমহাল সাব-লিজের ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা থাকা সত্ত্বেও সরকারি আইনকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে একটি মহল এসব অবৈধ কর্মকাণ্ড চালিয়ে যাচ্ছে। ফলে একদিকে দেশীয় মাছ বিলুপ্তির পথে, অপরদিকে চলতি বোরো মৌসুমে পর্যাপ্ত পানি না থাকায় সেচ কার্যক্রম ব্যাহত হচ্ছে।

 

শনিবার সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, উপজেলা সদরের নারায়নপুর মৌজার (ঝড়ঝড়ি) বিলের পাড়ে নিয়মবহির্ভূতভাবে কয়েকটি বড় বড় সেচ পাম্প বসিয়ে কয়েকদিন থেকে ঝড়ঝড়ি বিল প্রায় শুকিয়ে ফেলা হয়েছে। বিলের পাশে প্রায় ৪০ একর জমিতে বোরো ধান রোপণ করেছেন কৃষকেরা। বিল শুকিয়ে ফেলায় কৃষকের পড়েছে মাথায় হাত।

 

এ ব্যাপারে স্থানীয় কৃষক লকুছ মিয়া বালাগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবরে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। অভিযোগে বলা হয়েছে, প্রভাবশালী মহল গেল দুই বছর থেকে অদ্যাবধি বিল সেচের কার্যক্রম চালিয়ে আসছে। যার ফলে বোরো ধানের পরিচর্যার জন্য পানি পাওয়া যায় না। এতে ফসলের ব্যাপক ক্ষতিসাধন হওয়ার শঙ্কা রয়েছে। অভিযোগকারী লকুছ মিয়া প্রভাবশালীদেরকে গেল দুই বছরের মতো এবারও পানি সেচ করতে বাধা দিতে গেলে মারধর এবং হত্যার হুমকি প্রদান করেছেন স্থানীয় গহরমলি (রহমতপুর) গ্রামের বুদু মিয়া, জলিল মিয়া, আরশ আলী ও ইউনুছ মিয়া।

 

লকুছ মিয়া বলেন, ঝড়ঝড়ি বিলের পাশে প্রায় ৪০ একর জমিতে বোরো ধান রোপণ করেছেন আমার মতো শত কৃষক। মাছ-পানিখেকোরা যদি সেচ কাজ বন্ধ না করে, তবে অসহায় কৃষকদের ফলানো সোনালি ফসল পানির অভাবে ধ্বংস হয়ে যাবে। এ বিষয়ে স্থানীয় প্রশাসনের সুদৃষ্টি কামনা করছি।

 

এসব অবৈধ কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে জোরালো কোনো পদক্ষেপ না নেয়ায় জলাশয় শুকিয়ে মাছ আহরণ ও মাছের বংশ ধ্বংস করে যাচ্ছে একশ্রেণির অমৎস্যজীবী মানুষ। ফলে দেশীয় মাছের বিভিন্ন প্রজাতি ক্রমেই হারিয়ে যাচ্ছে এ জলাশয় থেকে। প্রতিবছরই জলাশয় শুকিয়ে মৎস্য আহরণের ঘটনা ঘটেই চলেছে। জলাশয় শুকিয়ে মৎস্য আহরণ করলে একদিকে যেমন মাছের বংশ ধ্বংস হচ্ছে, অন্যদিকে আশপাশের বোরো ফসলে পানি সেচের সংকট সৃষ্টি হচ্ছে। পানি শুকিয়ে মাছ ধরা এবং জলমহাল সাব-লিজের ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা থাকা সত্ত্বেও সরকারি আইনকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে একটি মহল এসব অবৈধ কর্মকাণ্ড চালিয়ে যাচ্ছে।

 

জানা যায়, ১৪৪৪ থেকে ১৪৪৯ বাংলা ৬ বছরের জন্য বালাগঞ্জ উপজেলার সবুজ বাংলা মৎস্যজীবী সমবায় সমিতির সভাপতি মাহবুব আলম তুহিন সরকারিভাবে লিজ নিলেও মূলত একই উপজেলার অমৎস্যজীবী বুদু মিয়াসহ একটি প্রভাবশালী সংঘবদ্ধ চক্র জলমহালটি থেকে মাছ ধরছে।

 

নিয়মবহির্ভূতভাবে পানি সেচের বিষয়টি সম্পর্কে জানতে মাহবুব আলম তুহিনের সাথে যোগাযোগ করা হলে বিষয়টি প্রথমে তিনি অস্বীকার করেন। পরে তিনি আর ফোন রিসিভ করেননি।

 

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মারিয়া হক অভিযোগ পাওয়ার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ ব্যাপারে দ্রুত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 

 

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017
Design BY Web Nest BD
ThemesBazar-Jowfhowo