বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ১১:২৩ অপরাহ্ন

নোটিশ :
সিলেট বিভাগসহ দেশের প্রতিটি জেলা ও উপজেলা সদরে প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে। আগ্রহীরা আমাদের পত্রিকার ইমেইল ঠিকানায় পূর্নাঙ্গ জীবন বৃত্তান্ত প্রেরণের আহবান জানানো যাচ্ছে। এছাড়া প্রবাসের বিভিন্ন দেশে আমরা প্রতিনিধি নিয়োগ দিচ্ছি।
শিরোনাম :
মার্চে সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণহানি ৫৬৫ জনের সিলেটের চার উপজেলায় লড়বেন ৬০ জন প্রার্থী শান্তিগঞ্জে গৃহবধূর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার থাইল্যান্ড যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী সিলেটে শিলাবৃষ্টির আভাস মৌলভীবাজার পৌরসভার দুটি প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন স্ত্রীর পরকীয়া প্রেমিকের হুমকিতে নিরুপায় স্বামী কারিতাস বাংলাদেশ মানুষের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছে: এম এ মান্নান এমপি কোম্পানীগঞ্জে শাহিন হত্যাকারীদের ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন হাঁসে ধান খাওয়াকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে বৃদ্ধ নিহত আমাদের লক্ষ্য খাদ্য নিরাপত্তা ও পুষ্টি: প্রধানমন্ত্রী সুনামগঞ্জে বোরোর বাম্পার ফলনে কৃষকের মুখে হাসি নবীগঞ্জে বাস চাপায় ২জন নিহত নদী যেন ময়লার ভাগাড়, দূষিত হচ্ছে পরিবেশ সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ হারালেন সংগীতশিল্পী পাগল হাসান ধান কাটানো নিয়ে দুশ্চিন্তায় কৃষকেরা জুড়ীতে জামায়াত নেতার মনোনয়ন বাতিল বালাগঞ্জে ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প অনুষ্ঠিত শাবিতে মুজিবনগর দিবস পালিত জুড়ীতে মুজিবনগর দিবস উদযাপন মধ্যপ্রাচ্যের উত্তেজনা নিয়ে মন্ত্রীদের তীক্ষ্ণ নজর রাখার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর ঝালকাঠিতে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত বেড়ে ১৪ ঈদের ছুটিতে লাউয়াছড়ায় সর্বাধিক রাজস্ব আয় চায়ের ন্যায্যমূল্য না পেয়ে হতাশ বাগান মালিকরা শ্রীমঙ্গলে তাপদাহে মানুষের নাভিশ্বাস র‍্যাবের হাতে গ্রেপ্তার মাদক ব্যবসায়ী পুলিশের ঘুষিতে আসামির মৃত্যু! সিলেটকে স্মার্ট সিটি হিসেবে গড়তে নানা পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে: আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী বৃষ্টিতে আরব আমিরাতে বন্যা, দুবাই বিমানবন্দরে ফ্লাইট চলাচল বন্ধ শিল্পী সমিতির নির্বাচনে লড়ছেন যেসব তারকা
সিলেটের ৬টি আসন, তিনটিতেই নৌকা ডোবার আশঙ্কা

সিলেটের ৬টি আসন, তিনটিতেই নৌকা ডোবার আশঙ্কা

 

জাগ্রত সিলেট ডেস্ক :: দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সিলেটের ৬টি আসনের মধ্যে ৩টিতেই নৌকা ডোবার আশঙ্কা রয়েছে। ২টিতে নৌকার প্রার্থীরা নিশ্চিত জয়ের পথে থাকলেও একটিতে হবে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই। জয়ের পথে থাকা প্রার্থীরা হচ্ছেন সিলেট-১ (মহানগর-সদর) আসনে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন ও সিলেট-৪ (কোম্পানীগঞ্জ-জৈন্তাপুর-গোয়াইনঘাট) আসনে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থানমন্ত্রী ইমরান আহমদ।

 

যে ৩টি আসনে নৌকা ডোবার শঙ্কা রয়েছে সেখানে সক্রিয়ভাবে কাজ করছেন আওয়ামী লীগেরই কর্মী-সমর্থকরা। সরকার অংশগ্রহণমূলক প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ নির্বাচনের পরিবেশ তৈরি করতে নৌকার মুখোমুখি করে দিয়েছে আওয়ামী লীগকে। এই তিনটি আসনে ভোটযুদ্ধ এখন পরিণত হয়েছে নৌকা বনাম আওয়ামী লীগে।

 

অংশগ্রহণমূলক প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ নির্বাচনে সব হারাতে পারেন নৌকার প্রার্থী সিলেট-৩ আসনে হাবিবুর রহমান, সিলেট-৫ আসনে সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা মাসুক উদ্দিন আহমদ ও সিলেট-৬ আসনে সাবেক শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ।

 

আওয়ামী লীগ প্রার্থী দেওয়ার পরও মনোনয়ন বঞ্চিতদের স্বতন্ত্র প্রার্থী হতে বাধা-নিষেধ না থাকায় তৃণমূল কর্মীরা দলীয় প্রার্থী রেখে ছুটছেন স্বতন্ত্র প্রার্থীর পেছনে। মাঠপর্যায়ে নির্বাচন নিয়ে কাজ করা দলীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে আলাপ করে এমন চিত্রই পাওয়া গেছে।

 

সিলেট-৩ (দক্ষিণ সুরমা-ফেঞ্চুগঞ্জ-বালাগঞ্জ) আসনে আওয়ামী লীগ হাবিবুর রহমান এমপির গলার কাঁটা হয়ে দাঁড়িয়েছেন আওয়ামী লীগের মনোনয়ন বঞ্চিত স্বতন্ত্র প্রার্থী বিএমএ’র মহাসচিব ডা. মো. ইহতেশামুল হক চৌধুরী দুলাল (ট্রাক প্রতীক)। এ আসনে ৭ জন প্রার্থী থাকলেও মূল লড়াইয়ে আছেন তারা দুজন। দলীয় প্রার্থীর সঙ্গে দক্ষিণ সুরমা, ফেঞ্চুগঞ্জ ও বালাগঞ্জ আওয়ামী লীগের পদধারী নেতারা নৌকার পক্ষে কাজ করলেও তৃণমূল কর্মী-সমর্থকদের বড় একটি অংশ কাজ করছেন নৌকার প্রার্থীর বিপক্ষে। তারা ট্রাকের বিজয় ছিনিয়ে আনতে মরিয়া। একই সঙ্গে এ আসনের টানা তিনবারের দলীয় এমপি মরহুম মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরীর কর্মী-সমর্থকরাও নৌকা ছেড়ে ট্রাকে উঠেছেন। এর মধ্যে স্বতন্ত্র প্রার্থী ডা. দুলালের বিজয় ত্বরান্বিত করতে মাঠে নেমেছেন এই আসনের একাধিকবারের সাবেক এমপি শিল্পপতি শফি আহমদ চৌধুরী। তার কর্মী-সমর্থকরা এখন ট্রাকের লিফলেট নিয়ে ছুটছেন ভোটারদের বাড়ি-বাড়ি। গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে শফি আহমদ চৌধুরী ৭ জানুয়ারি মুক্তিযুদ্ধে বীরপ্রতীক খেতাবপ্রাপ্ত সিলেটের সম্ভ্রান্ত পরিবারের সুসন্তান ডা. দুলালকে ট্রাক প্রতীকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করার জন্য ভোটারদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

 

এ আসনে অন্য প্রার্থীরা হচ্ছেন- জাতীয় পার্টির আতিকুর রহমান (লাঙ্গল), বাংলাদেশ ইসলামী ঐক্যফ্রন্টের শেখ জাহেদুর রহমান মাসুম (মোমবাতি), ইসলামী ঐক্যজোটের মো. মইনুল ইসলাম (মিনার), ন্যাশনাল পিপলস পার্টির আনোয়ার হোসেন আফরোজ (আম) ও স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. ফখরুল ইসলাম (ঈগল)।

 

সিলেট-৫ (কানাইঘাট-জকিগঞ্জ) আসনে সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা মাসুক উদ্দিন আহমদ নৌকার প্রার্থী হলেও স্থানীয় আওয়ামী লীগের বড় একটি অংশ কাজ করছে স্বতন্ত্র প্রার্থী আঞ্জুমানে আল-ইসলাহর মহাসচিব মাওলানা মোহাম্মদ হুছামুদ্দীন চৌধুরীর (কেটলি) পক্ষে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করে তিনি প্রার্থী হওয়ায় দলীয় নেতাকর্মীদের মাঝে এর প্রভাব পড়েছে। স্থানীয় আওয়ামী লীগের একাধিক নেতা জানান, হুছামুদ্দীনকে জেতাতে দলের হাইকমান্ডের ইঙ্গিত রয়েছে। এছাড়া সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আহমদ আল কবির (ট্রাক) স্বতন্ত্র প্রার্থী হওয়ায় নৌকার বিজয়কে আরও কঠিন করে তুলছে। ক্ষমতাসীন দলের একাধিক প্রার্থী থাকায় হুছামুদ্দীনের জয়কে সহজ করে দিয়েছে বলে কর্মী-সমর্থকরা মনে করছেন। এ আসনের অন্য প্রার্থীরা হচ্ছেন-জাতীয় পার্টির শাব্বীর আহমদ (লাঙ্গল), তৃণমূল বিএনপির কুতুব উদ্দীন আহমদ শিকদার (সোনালী আঁশ), বাংলাদেশ কংগ্রেস’র মো. বদরুল আলম (ডাব) ও বাংলাদেশ মুসলিম লীগের মো. খায়রুল ইসলাম (হাতপাঞ্জা)।

 

সিলেট-৬ (বিয়ানীবাজার-গোলাপগঞ্জ) আসনে সাবেক শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ নৌকার প্রার্থী হলেও তাকে চ্যালেঞ্জ করে জনপ্রিয়তা যাচাই করতে প্রার্থী হয়েছেন দলীয় মনোনয়নবঞ্চিত সরওয়ার হোসেন (ঈগল)। একই আসনে তৃণমূল বিএনপির চেয়ারপারসন শমসের মুবিন চৌধুরী (সোনালী আঁশ) প্রার্থী হওয়ায় আরও বিপাকে পড়েছেন নাহিদ। স্থানীয় আওয়ামী লীগের একটি অংশ নৌকা রেখে মাঠে কাজ করছেন সোনালী আঁশের পক্ষে।

 

স্থানীয় আওয়ামী লীগের একাধিক নেতা জানান, অংশগ্রহণমূলক প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ নির্বাচনের স্বার্থে শমসের মুবিনকে বিজয়ী করার চাপ রয়েছে। এ আসনে অন্য প্রার্থীরা হচ্ছেন-জাতীয় পার্টির সেলিম উদ্দিন (লাঙ্গল), বাংলাদেশ সাংস্কৃতিক মুক্তিজোটের আতাউর রহমান আতা (ছড়ি) ও ইসলামী ঐক্যজোটের সাদিকুর রহমান (মিনার)।

 

এছাড়া সিলেট-২ (বিশ্বনাথ-ওসমানীনগর) আসনে নৌকার প্রার্থী জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাবেক এমপি শফিকুর রহমান চৌধুরী রয়েছেন কঠিন চ্যালেঞ্জের মুখে। দশম ও একাদশ সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের ছেড়ে দেওয়া আসনে এমপি হওয়া জাতীয় পার্টির ইয়াহইয়া চৌধুরী (লাঙ্গল) ও গণফোরামের মোকাব্বির খান এমপি (উদীয়মান সূর্য), এবার নৌকার জয়ে প্রধান বাধা। এর মধ্যে উচ্চ আদালতের রায়ে প্রার্থিতা পেয়ে মাঠে নেমেছেন বিশ্বনাথ পৌরসভার মেয়র মুহিবুর রহমান। একাধিকবারের উপজেলা চেয়ারম্যান মুহিব প্রার্থিতা ফিরে পাওয়ায় বদলে গেছে ভোটের হিসাব। এই আসনে সাবেক-বর্তমান ৩ এমপি ও পৌর মেয়র ভোটযুদ্ধে থাকায় হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হবে বলে মনে করছেন ভোটাররা। এ আসনে অন্য প্রার্থীরা হলেন-তৃণমূল বিএনপির মোহাম্মদ আব্দুর রব (সোনালী আঁশ), বাংলাদেশ কংগ্রেসের মো. জহির (ডাব) ও ন্যাশনাল পিপলস পার্টির মো. মনোয়ার হোসাইন (আম)।

 

 

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017
Design BY Web Nest BD
ThemesBazar-Jowfhowo